Essay কি? কিভাবে Essay লিখবেন?

  (5/5, 1 vote)

Essay কি?

Essay বা প্রবন্ধ বলতে একটি লিখিত রচনাকে বুজায় যা কোন একটি নির্দিষ্ট বিষয় বা ধারণাকে যুক্তি, চিন্তাভাবনা বা আবেগ প্রকাশের মাধ্যমে  উপস্থাপন করা হয়।  একটি প্রবন্ধ সাধারণত ৫০০ থেকে ৫০০০ শব্দ বা তার বেশিও হতে পারে। তবে বেশিরভাগ প্রবন্ধ প্রায় ১০০০ থেকে ৩০০০ শব্দের মধ্যে দেখা যায়।

Essay লেখার নিয়ম 

Essay লেখার ক্ষেত্রে কাঠামো বা গঠন কি হবে সে ব্যাপারে অনেকেরই স্পষ্ট ধারনা নেই। যার ফলে IELTS, TOEFL এর মতো পরীক্ষাসহ অন্যান্য ক্ষেত্রে essay লেখার ক্ষেত্রে অনেকেই সমস্যার সম্মুক্ষীন হয়।

Essay লেখার ক্ষেত্রে কাঠামো সহজভাবে বুঝতে হলে একটা ‘বার্গার’ এর কথা ভাবা যেতে পারে।

বার্গারের উপরের বান - ‘Introduction’

মাঝের প্যাটি - ‘Body of The Essay’

শেষের বান - ‘Conclusion’ 

Structuring the Essay (Building a Burger)

Introduction- Topic Sentence, Hook, Thesis Statement.

Few sentences.

Body- Facts to support the Topic or Thesis.

3-5 Paragraphs; Each with main ideas & statements.

Conclusion - Summing up the Arguments of the Body;

Done in a few sentences.

Choosing a Topic

Essay লেখার বিষয় নির্ধারনের ক্ষেত্রে, আপনার আগ্রহ এবং স্পষ্ট ধারনা আছে এমন কোন বিষয়কে নির্ধারণ করা উচিৎ। বিষয়টি যেনো Broad এবং Common হয়, অর্থাৎ বিষয়টিকে অবশ্যই বিস্তৃত হতে হবে এবং সেই বিষয় সম্পর্কে মানুষ পরিচিত বা অবগত। এদিকে বিশেষ নজর রাখা প্রয়োজন।

বিষয়বস্তুর সঙ্গে মানুষ যদি পরিচিত না হয় তবে তা বুঝতে পাঠকদের বেগ পেতে হবে। এক্ষেত্রে অবশ্যই আলোচনাকে যথাসম্ভব সহজবোধ্য করে তুলতে হবে এবং প্রয়োজনীয় প্রেক্ষাপট বা পটভূমি সহ আলোচনা করতে হবে।

বিষয় নির্ধারণের পর, পুরো বিষয়টির আলোচনার একটি Thesis বা Central idea দাঁড় করাতে হয়। একজন লেখক পুরো আলোচনায় সেই থিসিস বা কেন্দ্রীয় আইডিয়াটিকে ব্যাখ্যা করে থাকেন। 

Drafting the Outline

বিষয় নির্ধারণের পর মূল কাজ একটি আউটলাইন বা রোডম্যাপ তৈরি করা। একটি আউটলাইন তৈরি করা হয়ে গেলে পরবর্তীতে লেখার কাজ অনেকাংশে সহজ হয়ে যায়।

একটি প্রবন্ধের জন্য ৩-৫ টি মূল মূল পয়েন্ট নির্দিষ্ট করে রাখতে হয়। প্রতিটি প্যারাগ্রাফে এক বা একাধিক করে গুরুত্বপূর্ণ বিষয় বা ধারনা নিয়ে আলোচনা ও ব্যাখ্যা করা হলে প্রবন্ধটি পরিপূর্ণ হয়ে যায়। তবে একটি প্যারাগ্রাফে ৩ টির বেশি নতুন ধারণার অবতারণ করা অনুচিত।  

1. Introductory Paragraph

Hook: বিষয় সংক্রান্ত এমন কোন তথ্য বা সমীক্ষা যা কিনা পাঠকদেরকে পরবর্তী অংশ পড়তে আকৃষ্ট করবে । 

Thesis: পুরো প্রবন্ধে যা বলা হবে, সেই কেন্দ্রীয় ধারনাটিকে একটি বাক্যের সাহায্যে উপস্থাপন করা। 

পরবর্তী body paragraph অংশে যা আলোচনা করা হবে, সেই অনুযায়ী ভূমিকার সঙ্গে পরবর্তী অংশকে সংযুক্ত করে দিতে হয়।

2. Body Paragraph

Main idea: এই পর্যায়ে প্যারাগ্রাফের মূল ধারণাকে উপস্থাপন করা হয়।

Support: মূল ধারণাকে প্রতিষ্ঠিত করতে সহায়ক তথ্য, উদাহরন কিংবা সমীক্ষা।

Conclusion: প্যারাগ্রাফের পুরো আলোচনার একটা মূল প্রতিপাদ্য উপস্থাপন করতে হয়।

সাধারণত একটি Essay তে এরকম ৩-৫ টি Body Paragraph থাকে।

প্রতিটি প্যারাগ্রাফে নতুন এক বা একাধিক ধারণা উত্থাপন করে, সেই ধারনাকে আরো শক্ত-পোক্ত করতে যথাযথ উদাহরণ, ডেটা, তথ্য কিংবা আলোচনা করে, একটি conclusion এর সাহায্যে প্যারাগ্রাফকে শেষ করতে হয়।

3. Concluding Paragraph

থিসিস এর মূল নির্যাস নিয়ে একটি সংক্ষিপ্ত আলোচনা করতে হয়। যেখানে প্যারাগ্রাফের মূল মূল আলোচনার একটি সারমর্ম সংক্ষিপ্ত আকারে উপস্থাপন করতে হয়। সবশেষে পুরো essay’র আলোচনার উপর ভিত্তি করে সমাপ্তিসূচক ভঙ্গিতে প্রতিপাদ্য দিয়ে ইতি টানতে হয়।

Creating the Introduction

আউটলাইন তৈরি হয়ে গেলে সর্বপ্রথমে ভূমিকা লিখতে হয়। এই ধাপে প্রথম বাক্যেই পাঠক যেনো লেখাটির পরবর্তী অংশ পড়তে আগ্রহ পায়, সেভাবে লিখতে হয়। Hook করার জন্য বাক্যে মজার কোন তথ্য, উপাত্ত, উক্তি, সমীক্ষার ফলাফল কিংবা প্রশ্ন দেয়া যায়।

Hooking এরপর ২য় বাক্যে Thesis statement যোগ করতে হয়। Thesis statement এমন একটি বাক্য, যা পুরো প্রবন্ধের মূলভাবকে প্রকাশ করে। লেখার পরবর্তী ধাপে একজন পাঠক কি পড়ার জন্য পাবেন, সে বিষয়ে একটা ধারণা দেয়া হয় এই বাক্যের সাহায্যে।   

 

Published By
About us  | Privacy Policy | Terms of Service
© 2021 grammarbd.com All Rights Reserved.