আত্মবিশ্বাসের সাথে English এ কথা বলার উপায়

  (5/5, 1 vote)

অনেকেই ইংরেজিতে অন্যদের সাথে কথা বলার সময় উদ্বিগ্ন বা নার্ভাস হয়ে যায়। এই ভয়ের পেছনে মূলত ৩টি নির্দিষ্ট কারণ রয়েছে, যা এই উদ্বিগ্নতাকে উদ্দীপ্ত করে তোলে। যেগুলো হলঃ

1. ইংরেজিতে কথা বলার ক্ষেত্রে, নিজের সামর্থ্যের উপর আত্মবিশ্বাস না থাকা।

2. ভুল করার ভয়।

3. অন্যরা তাদের কথা বুঝতে পারবে কিনা,সে বিষয়ে দুশ্চিন্তা।

এসব সমস্যাগুলো অধিকাংশ শিক্ষার্থী যারা ইংরেজি শিখছেন, ইংরেজি ভাষার দক্ষতা বৃদ্ধি করতে চাচ্ছে, তাদের সচরাচরই হয়ে থাকে।

উপরে উল্লিখিত ৩টি শঙ্কা বা ভয়ের পেছনে কাজ করে মূলত তাদের (mindset) মানসিকতা।

নতুন একটি ভাষা শিক্ষার ক্ষেত্রে একজনের মানসিকতা, সেই কাজের ফলাফলের উপর অনেকাংশে  প্রভাব ফেলে।

নিজেদের ইংরেজি ভাষার দক্ষতা এবং সামর্থ্যের উপর নিজেদের দৃষ্টিভঙ্গি, ভুল করার মাধ্যমের শেখার এবং অন্যের কথা বোঝার এবং বোঝাবার চেষ্টা করার মতো মানসিকতা; তাদের ইংরেজিতে কথা বলার ক্ষেত্রে আত্মবিশ্বাসকে বৃদ্ধি করে। আর এই আত্মবিশ্বাস অনেকাংশেই ফলাফল কি হবে; সেই ব্যক্তিটি ইংরেজিতে কথা বলার সময় সফলভাবে পারবেন কি না, তা নির্ধারণ করে।

এজন্য অন্যান্য অনেক কাজের মতো ইংরেজিতে আত্মবিশ্বাসের সাথে কথা বলার প্রসঙ্গে মানসিকতাকে ইতিবাচক এবং উন্মুক্ত করে রাখা সম্ভব হলে কাজটিও সহজে হয়ে যাবে।

একজন শিক্ষার্থীর ইংরেজি ভাষায় যোগাযোগ করার বিষয়ে মানসিকতাকে স্থির করার জন্য

  • Practice & Repetition
  • Speak More Slowly
  • Don’t Run Away

এ অভ্যাসগুলো গড়ে তোলা কার্যকরি হতে পারে। 

নিয়মিত English speaking চর্চা করার অভ্যাস গড়ে তুলুন 

কোন কাজ যখন আমাদের জন্য তুলনামূলকভাবে স্বাভাবিক হয়ে যায়, আমরা সহজেই সেই কাজ করে ফেলতে পারি। আমরা নিয়মিত চর্চার মাধ্যমে যেকোন কাজকে অভ্যস্ততায় পরিণত করতে পারি।
প্রতিনিয়ত চর্চার মাধ্যমে যেসব কাজকে আমরা আমাদের প্রতিদিনের অভ্যাসে পরিণত করি, সেসকল কাজ আমাদের জন্য স্বাভাবিক একটি কাজে রূপান্তরিত হয়ে যায়।

এধরনের কাজ করার ক্ষেত্রে আমরা তুলনামূলক কম ভীতি-আশঙ্কা-সংকোচ অনুভব করে থাকি। এজন্য ইংরেজিতে কথা বলার ব্যাপারটিকে প্রতিদিনের চর্চার মাধ্যমে স্বাভাবিক করার মাধ্যমে খুব সহজেই এ বিষয়ক আত্মবিশ্বাস গড়ে তোলা যায়। 

মিটিং বা প্রেজেন্টেশনের মতো ফরম্যাল সেট আপে ইংরেজিতে কথা বলার সময় কেউ সংকোচ বা উদ্বিগ্নতা অনুভব করলে, তার প্রতিনিয়ত সে বিষয়ক চর্চা বৃদ্ধি করা ব্যতীত আর কোন পথ নেই।

এধরনের আনুষ্ঠানিক ক্ষেত্রে কথাবার্তার বিষয়ে যে সব প্রশ্নের সম্মুখীন হতে পারে, সে ধরনের উত্তর প্রয়োজনে লিখে জোরে জোরে সেসব বলার অনুশীলন করতে হবে।

শুধুমাত্র চর্চা নয় বরং নিয়মিত অনুশীলন এবং বারে বারে একই কাজ পুনরায় করার মাধ্যমেই এই অভ্যাসটি গড়ে উঠবে এবং কাজটি স্বাভাবিক একটি কাজে পরিণত হবে। যা কথা বলার ক্ষেত্রে একজনের আত্মবিশ্বাসকে সার্বিকভাবে উন্নীত করবে।   

Speak More Slowly  - ধীরে ধীরে কথা বলুন

দ্রুত কথা বলতে যেয়ে ভুল বলার চেয়ে তুলনামূলক ধীরে তবে শুদ্ধভাবে কথা বলা উত্তম। এতে করে একজনের কথা শ্রোতাদের বুঝতে না পারার অনেকাংশেই কমে যাবে।
আরেকটি উল্লেখযোগ্য বিষয় হল (accent) উচ্চারণ। আপনার উচ্চারণের সঙ্গে অন্যরা পরিচিত হলেও আপনার কথা তাদের জন্য বোঝা কঠন হয়ে যাবে। শুরুর দিকে সাধারণত এই সমস্যাটি হয়ে থাকে। তবে ধীরে ধীরে শ্রোতারা আপনার কথা বুঝতে শুরু করবে।

আর যদি আপনার উচ্চারণের সমস্যাজনিত কারণে শ্রোতাদের বুঝতে সমস্যা হয়, সেক্ষেত্রে আপনার তুলনামূলক ধীরে কথা বলার চর্চা করা উচিৎ।  শুধুমাত্র ধীরে কথা বললেই চলবে না, যদি না তা শুদ্ধ হয়। 

যখন শ্রোতাদের পক্ষ থেকে আপনার কথা বুঝতে পারার আর কোন সমস্যা থাকবে না, শ্রোতারা আপনার কথা ঠিকভাব বুঝতে পারবে, আপনার কথায় সাড়া দেবে; তখন এমনিতেই স্বাভাবিকভাবে একজন মানুষের ইংরেজিতে কথা বলার বিষয়ে আত্মবিশ্বাস বৃদ্ধি পাবে। সর্বোপরি ইংরেজিতে কথা বলার বিষয়ে ভীতি কমে যাবে এবং একজনের পক্ষে আরো ভালোভাবে ইংরেজিতে কথা বলা সম্ভব হবে।      

অনাকাংখিত বা অস্বস্তিকর পরিস্থিতি থেকে পলায়ন না করা

নতুন কোন কাজ করার ক্ষেত্রে যেমন অস্বস্তিকর পরিস্থিতির তৈরি হয়, ইংরেজিতে কথা বলার ক্ষেত্রেও একই কাজ হবার সম্ভাবনা রয়েছে। অস্বস্তিকর পরিস্থিতি তৈরি হলে অনেকেই সেই কাজ থেকে নিজেকে গুটিয়ে নেয় বা লজ্জার ভয়ে সেখান থেকে পলায়ন করে। অনাকাংখিত বা অস্বস্তিকর পরিস্থিতি থেকে পলায়ন করা বা নিজেকে গুটিয়ে ফেলা কোন সমাধান নয়।

নতুন কাজের ক্ষেত্রে যেমন ভুল হয়, ভুল থেকেই নতুন কিছু শেখা যায়। তেমনি করে ইংরেজিতে কথা বলার ক্ষেত্রে শুরুর দিকে ভুল হবে, অস্বস্তিজনক পরিস্থিতির মধ্য দিয়ে যেতে হয়; এধরনের পরিস্থিতি তৈরি হওয়া অনেকটা স্বাভাবিক ব্যাপার। এধরনের পরিস্থিতিতে লজ্জার ভয়ে ভীত না হয়ে বরং ব্যাপারটিকে স্বাভাবিক ধরে নিয়ে সেই পরিস্থিতির মোকাবেলা করার মতো মানসিক দৃঢ়তা তৈরি করা অত্যন্ত প্রয়োজন।

অধিকাংশ মানুষ ইংরেজি ভাষায় যোগাযোগের ক্ষেত্রে লজ্জার কারণে হাল ছেড়ে দেন, চর্চা চালিয়ে যেতে ব্যর্থ হন এবং সার্বিকভাবে নতুনভাষা শিক্ষার ক্ষেত্রে হেরে যান।
এজন্য পরিস্থিতির ভয়ে ভীত হবার থেকে সেই ভয়কে মোকাবেলা করা এবং যথার্থ অনুশীলনের মাধ্যমে সেই ভয়কে জয় করার মানসিকতা তৈরি করা কার্যকর।  

নতুন যেকোন কাজ করার মতো ইংরেজিতে কথা বলার ক্ষেত্রেও ভুল হবে, লজ্জা করবে- এসব বিষয়কে অতি স্বাভাবিক এবং শিক্ষণ প্রক্রিয়ার একটি অংশ হিসেবে ধরে নিয়ে;

  • নিজের উপর ভরসা রেখে প্রতিনিয়ত চর্চার মাধ্যমে অভ্যস্থতা তৈরি করণ,
  • প্রয়োজনে ধীরে তবে শুদ্ধভাবে উচ্চারণ করে কথা বলার অনুশীলন,
  • লজ্জা বা অস্বস্তিকর পরিস্থিতিকে ভয় না পেয়ে মোকাবিলা,

করার মাধ্যমে আত্মবিশ্বাস বৃদ্ধি করা হতে পারে উত্তরণের কার্যকর উপায়। 

নতুন কোন কিছু ভালোভাবে শেখার ক্ষেত্রে মূলত অনুশীলন এবং চর্চার মাধ্যমে নিজের উপর নিজের আত্মবিশ্বাসকে বৃদ্ধি করার চেয়ে আর কোন কার্যকর উপায় হতে পারে না।

 

Published By
About us  | Privacy Policy | Terms of Service
© 2021 grammarbd.com All Rights Reserved.