Writing Skill এবং Writing এর উদ্দেশ্যসমুহ (Purposes)

  (5/5, 4 votes)

Writing এমন একটি skill যা কখনো স্থির অবস্থায় থাকে না। এই দক্ষতাটিকে আপনি সবসময়ই উন্নত করতে পারবেন এবং অসংখ্য জায়গায় ব্যবহার করতে পারবেন। English writing skill এর function ও অনেক। সত্যি বলতে আপনি যদি ইংরেজিতে ভাল লিখতে পারেন, আপনার এই দক্ষতা আপনাকে ভাল রেজাল্ট, ভাল জব, এবং একটি ভাল ক্যারিয়ার গড়তে সাহায্য করবে। আপনার এই Skill টিই আপনাকে এই প্রতিযোগিতামুলক বিশ্বে সবার চেয়ে এগিয়ে রাখবে।

Writing হচ্ছে communication এর অন্যতম একটি মাধ্যম যা ভাষাকে একটি বস্তুগত রূপ দান করে। Writing ছাড়া ভাষার অন্য সব ব্যবহার যেমন speaking, reading, এবং listening কোনটাই দৃশ্যমান না। কিন্তু writing এর একটি concrete রূপ আছে। তাই লিখিত বক্তব্যের গুরত্ব অনেক বেশি হিসেবে বিবেচনা করা হয়। English writing skill সর্বদাই উন্নত করা সম্ভব। আপনি যত বেশি লিখবেন, আপনার দক্ষতা তত বাড়বে। তবে writing এর বিষয়ে কিছু basic ধারণা থাকা জরুরী।

Purposes of Writing

 যখনই আপনি কিছু লেখার চিন্তা করবেন, তার পিছনে অবশ্যই একটি উদ্দেশ্য থাকবেই। এই উদ্দেশ্যকে purpose of writing বলে। এই উদ্দেশ্য formal অথবা informal, official অথবা personal, অথবা যেকোন কিছুই হতে পারে। আপনাকে কেউ লিখতে বলতে পারে অথবা আপনি নিজে থেকেই লিখতে পারেন। যাইহোক, আপনার একটি অথবা অনেকগুলো উদ্দেশ্য অবশ্যই থাকবে। এই উদ্দেশ্য আপনার লেখার form এবং type নির্ধারণ করবে।

সবচেয়ে common সাধারণ purpose of writing গুলো হল: 

To Provide Information (তথ্য প্রদান):

তথ্য প্রদানের উদ্দেশ্যে লেখা হচ্ছে সবচেয়ে বেশি ব্যবহৃত purpose of writing. প্রতিটা মানুষের কোন একটি বিষয়ে অন্যদের তুলনায় বেশি আগ্রহ থাকতেই পারে এবং তিনি সেই বিষয়ে অন্যদের তুলনায় স্বাভাবিকভাবেই বেশি তথ্য জানেন। সুতরাং, তিনি চাইলেই অন্যদেরকে তাদের অজানা তথ্যগুলকে জানিয়ে দিতে পারেন কোন একটি প্রবন্ধ অথবা রচনা লেখার মাধ্যমে। যেকোন প্রশ্নের উত্তর দেয়ার ক্ষেত্রেও এই purpose টিই ব্যবহৃত হয়। এসব ক্ষেত্রে তথ্য প্রদান বলতে তথ্যের ব্যখ্যা বিশ্লেষণ ইত্যাদি ও অন্তর্ভুক্ত।     

To Persuade (প্রবর্তনা):

কাউকে প্রবর্তনার মাধ্যমে কোন বিষয়ে প্রভাবিত করার জন্যে writing এর চেয়ে কার্যকরী আর কোন মাধ্যম নেই। প্রবর্তনা হচ্ছে কাউকে কোন কিছু করতে অথবা চিন্তা করতে প্রভাবিত করা। এই প্রবর্তনা হতে পারে ইতিবাচক (Positive Persuasion) অথবা নেতিবাচক (Negative Persuasion). যেমন ধরুন, আপনি মানুষকে একটি বই কিনতে উৎসাহিত করতে চাচ্ছেন, আপনি বইটির ভাল দিকগুলো তুলে ধরে একটি book review লিখতে পারেন। এই লেখাটি একটি ইতিবাচক প্রবর্তনার (Positive Persuasion) উদ্দেশ্য লেখা হবে। অথবা ধরুন, আপনি মানুষকে ধুমপান থেকে বিরত থাকার জন্যে আহ্বান জানাতে চাচ্ছেন, তখন আপনি ধুমপানের ক্ষতিকর দিকগুলোকে তুলে ধরে একটি আর্টিকেল লিখতে পারেন। এটি একটি নেতিবাচক প্রবর্তনা (Negative Persuasion) হিসেবে বিবেচিত হবে।

To Express Feeling (মনের ভাব প্রকাশ):

Writing আপনাকে আপনার মনের ভাবগুলোকে গঠনমূলক এবং সৃজনশীলভাবে প্রকাশ করার সুযোগ করে দেয়। মনের ভাব এবং আবেগ ইত্যাদি সাধারণত কথ বলার মাধ্যমেই প্রকাশ করা হয়। কিন্তু,মানুষ তার মনের ভাব লিখে প্রকাশ করতেই বেশি স্বাচ্ছন্দ্যবোধ করে এবং করে এসেছে। কবিতা, গল্প, উপন্যাস, ব্যক্তিগত চিঠি, ডায়েরী, ইত্যাদি ক্ষেত্রে মানুষ তার মনের ভাব প্রকাশ করে থাকে।  

To Give Pleasure (আনন্দ দান):

পাঠকদের আনন্দদানের উদ্দেশ্যে বিভিন্ন writer রা যুগে যুগে অনেক কবিতা, গল্প, উপন্যাস, ইত্যাদি লিখে গেছেন। এসব ক্ষেত্রে লেখক এবং পাঠক উভয়ই আনন্দ পেয়ে থাকেন। গল্প, কবিতা ছাড়াও তথ্য প্রদান অথবা মনের ভাব প্রকাশের মাধ্যমেও আনন্দ দেয়া এবং পাওয়া যায়। সুতরাং, আমরা বুঝতেই পারছি যে একটি writing এ একের অধিক purpose (উদ্দেশ্য) থাকতেই পারে।

 

 

Published By
About us  | Privacy Policy | Terms of Service
© 2018 grammarbd.com All Rights Reserved.